শুভেচ্ছা বিনিময়
Download
1 / 28

মূল আলোচনা - PowerPoint PPT Presentation


  • 497 Views
  • Uploaded on

শুভেচ্ছা বিনিময়. সূচিপত্র. পরিচিতি. প্রেষণা দান. শিখনফল. পাঠ ঘোষনা. মূল আলোচনা. একক কাজ. দলীয় কাজ. মূল্যায়ন. বাড়ীর কাজ. ধন্যবাদ. পাঠ পরিচিতি শ্রেণীঃ নবম বিষয়ঃ জীববিজ্ঞান অধ্যায়ঃ ২য় জীবকোষ ও টিস্যু (গঠন , শ্রেণিবিভাগ ও বৈশিষ্ট্য). শিক্ষক পরিচিতি. পাঠের বিষয়বস্তু.

loader
I am the owner, or an agent authorized to act on behalf of the owner, of the copyrighted work described.
capcha
Download Presentation

PowerPoint Slideshow about ' মূল আলোচনা' - casta


An Image/Link below is provided (as is) to download presentation

Download Policy: Content on the Website is provided to you AS IS for your information and personal use and may not be sold / licensed / shared on other websites without getting consent from its author.While downloading, if for some reason you are not able to download a presentation, the publisher may have deleted the file from their server.


- - - - - - - - - - - - - - - - - - - - - - - - - - E N D - - - - - - - - - - - - - - - - - - - - - - - - - -
Presentation Transcript

শুভেচ্ছা বিনিময়

সূচিপত্র

পরিচিতি

প্রেষণা দান

শিখনফল

পাঠ ঘোষনা

মূল আলোচনা

একক কাজ

দলীয় কাজ

মূল্যায়ন

বাড়ীর কাজ

ধন্যবাদ


পাঠ পরিচিতি

শ্রেণীঃ নবম

বিষয়ঃ জীববিজ্ঞান

অধ্যায়ঃ২য়

  • জীবকোষ ও টিস্যু (গঠন,শ্রেণিবিভাগ ও বৈশিষ্ট্য)

শিক্ষক পরিচিতি

পাঠের বিষয়বস্তু

মোঃ iwdKzjevix

সহকারীশিক্ষক - কৃষিশিক্ষা

কান্দি কাবিলাপাড়া বালিকা আলিম মাদরসা

E-mail: [email protected]

[email protected]

Mob 01716970840 ## 01916970840


উদ্ভিদকোষ ও প্রাণিকোষ

কোষ প্রাচীর

প্লাজমা মেমব্রেন

খাদ্য গহবর

মসৃন এন্ডোপ্লাজমিক জালিকা

খাদ্য গহর

গলজি বস্তু

নিউক্লিয়াস


আজকের আলচ্য বিষয়

  • জীবকোষ (গঠন,শ্রেণিবিভাগ ও বৈশিষ্ট্য)


এই পাঠ শেষে তোমরা-

  • সংজ্ঞাসহ কোষের প্রকারভেত উল্লেখ করতে পারবে।

  • কোষের অঙ্গগুলোর নাম জানতে পারবে।

  • অঙ্গগুলোর কাজ উদাহরণসহ বর্ণনা করতে পারবে।

  • চিত্র অংকন করে বিভিন্ন অংশ শনাক্ত করতে পারবে।



আদি কোষ

নীলাভ সবুজ শৈবাল Nostoc

ব্যাকটেরিয়া

সুগঠিত কোন নিউক্লিয়াস থাকে না। এদের আদি নিউক্লিয়াসযুক্ত Cell বলা হয়। নিউক্লিয়াস কোন পর্দা দ্বারা আবৃত থাকে না। এসব কোষে মাইটোকন্ড্রিয়া, প্লাষ্টিড, এন্ডোপ্লাজমিক রেটিকুলাম ইত্যাদি অঙ্গানু থাকে না। তবে রাইবোজোম উপস্থিত থাকে। ক্রোমোজোমে কেবল DNA অথবা RNA থাকে।


প্রকৃত কোষ

মাশরুম

অ্যামিবা

নিউক্লিয়াস সুগঠিত। ক্রোমোজোমমে DNA প্রটিন, হিস্টোন ও অন্যান্য উপাদান থাকে। এছাড়াও রাইবোজোম ছাড়া অন্যান্য কোষীয় অঙ্গাণু উপস্থিত থাকে।


  • যৌন প্রজনন ও জনুক্রম দেখা যায় এমন জীবে জনন কোষ উৎপন্ন হয়। মাতৃ ও পিতৃ জনন কোষ মিলিত হয়ে নতুন জীবের দেহ গঠনের সূচনা করে। এ প্রথম কোষটিকে জাইগোট (Zygote) বলে।


নিচের চিত্র গুলো লক্ষ্য কর-

প্রাণী কোষ

উদ্ভিদ কোষ


অঙ্গগুলোর নাম শনাক্তকরা যাক-

কোষ প্রাচীর

প্লাজমা মেমব্রেন

মাইটোকনড্রিয়া

মাইটোকনড্রিয়া

সেন্টিওল

ক্লোরোপ্লাসট

খাদ্য গহবর

লাইসোজোম

মসৃন এন্ডোপ্লাজমিক জালিকা

নিউক্লিয়ার আবরবণী

ক্রোমোসোম

নিউক্লিওলাস

নিউক্লিওপ্লাজম

কোষ গহবর

খাদ্য গহবর

গলজি বস্তু

গলজি বস্তু

সাইটোপ্লাজম


উদ্ভিদ ও প্রাণী কোষের মধ্যে পার্থক্য

  • ১।উদ্ভদ কোষে কোষ প্রাচিরআছে।

  • ২ ।উদ্ভিদ কোষে ক্ল্বোরোপ্ল্বাস্ট আছে।

  • ৩।উদ্ভিদ কোষে কোষ গহবরআছে

  • ৪ ।উদ্ভিদ কোষে গলজিবস্তু নেই

উদ্ভিদ কোষঃ

প্রাণী কোষঃ

১। প্রাণীকোষে প্রচির নেই।

২ ।প্রাণীকোষে ক্ল্বোরোপ্ল্বাস্ট নেই।

৩।প্রাণীকোষে গহবরনেয়।

৪।প্রাণীকোষেগলজিবস্তু আছে।


উদ্ভিদ কোষ ও প্রাণী কোষের গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গানু গুলো হল-

  • এইটি মৃত বা জড় বস্তু দ্বারা গঠিত।এতে সেলুলোজ, হেমিসেলুলোজ, লিগনিন, পেকটিন, সুবেরিন ইত্যাদি রাসায়নিক পদার্থ থাকে।

  • কোষ প্রাচীর

  • কাজ


  • কোষ প্রচীরের ঠিক নিচে সমস্ত প্রোটোপ্লাজমকে ঘিরে যে সজীব নরম মেমব্রেন বা ঝিল্লি থাকে তাকে প্লাজমা মেমব্রেন বা কোষঝিল্লি বলে।

কোষঝিল্লি একটি বৈষম্য ভেদ্য পর্দা হোয়ায় অভিস্রবণের মাধ্যমে পানি ও খনিজ চলাচল নিয়ন্ত্রণ করে ও পার্শ্ববর্তী কোষগুলোকে পরস্পর থেকে আদালা করে রাখে।

  • কাজ


প্রোটোপ্লাজম ও সাইটোপ্লাজম-

  • কোষের ভিতরে যে অর্ধস্বচ্ছ, থকথকে জেলির ন্যায় বস্তু থাকে তাকে প্রোটোপ্লাজম বলে।

  • এ প্রোটোপ্লাজম থেকে নিউক্লিয়াস কে সরিয়ে নিলে যে জেলি সদৃশ বস্তুটি থেকে যায় সেটিই সাইটোপ্লাজম।


সাইটোপ্লাজমিয় সাইটোপ্লাজম- অঙ্গানু-

  • মাইটোকন্ড্রিয়া- (পাওয়ার হাউজ)

  • দ্বিস্তর বিশিষ্ট ঝিল্লি দ্বারা আবৃত কোষের সাইটোপ্লাজমস্থ যে অঙ্গাণুতে ক্রেবস চক্র, ইলেকট্রন ট্রান্সপোর্ট প্রক্রিয়া ও ফ্যাইট এসিড চক্র ইত্যাদি ঘটে থাকে এবং শক্তি তৈরী হয় সেই অঙ্গানুকে মাইটোকন্ড্রিয়া বলে।

ঝিল্লি

ক্রিস্টি

ম্যাট্রিক্স


প্লাস্টিড- সাইটোপ্লাজম-

উদ্ভিদ কোষের সাইটোপ্লাজমের ভিতরে অবস্থিত বর্ণহীন বা বর্ণযুক্ত গোলাকার বা উপবৃত্তাকার যে সজীব বস্থু থাকে তাকে প্লাষ্টিড বলে। উদ্ভিদ কোষের সর্ববৃহৎ অঙ্গানু হল প্লাস্টিড।


নিউক্লিয়ার মেমব্রেন সাইটোপ্লাজম-

নিউক্লিওপ্লাজম

নিউক্লিয়ার রেটিকুলাম

নিউক্লিওলাস

গলজি বস্তু


সেন্ট্রিওল- সাইটোপ্লাজম-

‡m‡›Uªv‡Rvg

ক্রোমোনেমা

সেন্ট্রোমিয়ার

ধাত্র

ক্রোমোজোম


এবার দ্রুত খাতা-কলম রেডি কর-

  • উদ্ভিদের ফুল বিভিন্ন রঙিণ হয় কেন ? লিখ।

  • সকল গাছ-গাছরার পাতা প্রায়ই সবুজ হয় কেন ?


মুখো-মুখি বসে দল তৈরী কর

“A” দল

  • কোন কোষকে প্রাণকেন্দ্র বলা হয় কেন ? কোষটির চিত্র অংকন করে শনাক্ত কর।

“B” দল

  • পাওয়ার হাউস বলা হয় কোন কোষ কে, কেন বলা হয় ?

“C” দল

  • প্রাণিকোষের ৩ টি অঙ্গ সমুহের নামসহ কাজ লিখ।


পাঠ মূল্যায়ন কর

বলতো প্লাস্টিড কোথায় থাকে ?

উত্তর- সাইটোপ্লাজমে

নিউক্লিয়াসের গঠনের উপর কোষ কত প্রকার ও কি কি?

উত্তর- ২ প্রকার। যথা- ১। আদি কোষ ২। প্রকৃত কোষ

বলতো আজকের ক্লাশে আমরা কি কি শিখলাম ?

(কমপক্ষে ৩ জনকে নাম ধরে ১ জন যা বলবে পরের জন তা বাদ দিয়ে এভাবে)


বাড়ির কাজ কর

চিত্র অংকন সহ উদ্ভিদ কোষ ও প্রাণিকোষের পার্থক্য লিখ।

উদ্ভিদ ও প্রাণিকোষের কমপক্ষে ৫ অঙ্গের নাম, চিত্র ও সংজ্ঞা লিখে আনবে।


OK, করআবার আগামী ক্লাশে কথা হবে। বাসায় কোন সমস্যা মনে হলে নোট করে আনবে।